Home / What is Forex Trading?

What is Forex Trading?

 ফরেক্স কী এবং কেন?

 ফরেক্স মার্কেট কোথায় অবস্থিত?

 কারা ফরেক্স ট্রেড করে?

 ফরেক্স কী এবং কেন?

ফরেক্স বা এফএক্স – হচ্ছে “ফরেন এক্সচেঞ্জের” সংক্ষিপ্ত নাম। বিভিন্ন দেশের কারেন্সিতে একে অপরের বিপরীতে ট্রেড করা। ফরেক্স হচ্ছে বিভিন্ন কারেন্সি ট্রেডের জন্য বিশ্বের সবচেয়ে বড় ফাইনান্স্যিয়াল মার্কেটের মধ্যে একটি। এটা ফরেক্স এক্সচেঞ্জের মাধ্যমে আন্তর্জাতিক ট্রেড এবং বিনিয়োগে সহায়তা করে। ২০১৬ সালে ফরেক্সে দৈনিক লেনদেনের পরিমাণ ছিল $৫.১ ট্রিলিয়ন, ব্যাংক অফ ইন্টারন্যাশনাল সেটেলমেন্টের (BIS) ডাটা অনুযায়ী।
ফরেক্স মার্কেটে অনেক ধরনের অংশগ্রহণকারী রয়েছে। কেউ লাভ করতে ট্রেড করে, অন্যরা তাদের ঝুঁকি কমাতে এবং অন্যরা শুধু ফরেন কারেন্সিতে পণ্য ও সেবা ব্যবহার করার জন্য লেনদেন করে। মুখ্য অংশগ্রহণকারী যারা ট্রেড করে তারা হচ্ছে কমার্শিয়াল ব্যাংক, আর এজন্যই কারেন্সি কোট ইন্টারব্যাংক মার্কেট কোটে নির্ধারিত হয়ে থাকে। বড় কমার্শিয়াল ব্যাংক এবং সেন্ট্রাল ব্যাংক এবং মাল্টিন্যাশনাল কোম্পানি ছাড়াও, এখানে অনেক ঝুঁকি-সচেষ্ট বিনিয়োগকারী রয়েছে যারা সর্বদা বিভিন্ন ধরনের অনুমানের ভিত্তিতে অংশগ্রহণ করতে প্রস্তুত রয়েছে। তাদের মধ্যে রয়েছে- স্বতন্ত্র ব্যক্তিবর্গও, যারা দৈনিক/সাপ্তাহিক ভিত্তিতে প্রচুর পরিমাণে অর্থ লুফে নেয়। তাদের অনেকে অর্থনৈতিক এবং রাজনৈতিক খবর, স্ট্যাস্টিক্যাল রিলিজ এবং প্রভাবশালী ব্যক্তিদের সার্বজনীন যোগদান বিশ্লেষণ করে দেখে, যাতে ভবিষ্যতের প্রাইসের মুভমেন্ট সম্পর্কে ধারনা নিতে পারে। অন্যরা টেকনিক্যাল ইনডিকেটরের ওপর নির্ভর করে থাকে, বিশ্বে কি ঘটছে তার কোন ধরনের খবর না রেখে। আপনিও একজন ফরেক্স ট্রেডার হতে পারেন এবং কারেন্সি উদ্যোক্তাদের দলে যোগদান করতে পারেন।

ফরেক্স মার্কেট হচ্ছে ডিসেন্ট্রালাইজড মার্কেট। অন্য কথায়, এখানে কোন নির্দিষ্ট স্থান নেই যেখানে বিনিয়োগকারীরা কারেন্সি ট্রেড করতে যাবে। ফরেক্স ট্রেডাররা ইন্টারনেটের মাধ্যমে বিভিন্ন ডিলারের কাছ থেকে ভিন্ন কারেন্সি পেয়ারের কোট পেয়ে থাকে। বিশ্বজুড়ে ফাইনান্স্যিয়াল সেন্টার- লন্ডন, নিউইয়র্ক, টোকিও, হংকং এবং সিঙ্গাপুর- এখানে নোঙ্গর হিসেবে কাজ করে বিভিন্ন ধরনের বায়ার এবং সেলারদের মধ্যে লেনদেন সম্পন্ন করতে। ইন্টারব্যাংক কারেন্সি মার্কেটে এক্সেস পেতে হলে আপনার তা ফরেক্স ব্রোকারের মাধ্যমে পেতে হবে।
ফরেক্স হল একটি আন্তর্জাতিক বৈদেশিক মুদ্রা বিনিময়ের বাজার এবং আর্থবিশ্বের একটি অত্যাবশ্যকীয় অংশ। মুদ্রা বাজারের কোন নির্দিষ্ট ঠিকানা বা প্রধান কার্যালয় নেই। ফরেক্স হল ব্যাপক বিস্তৃত আর্থিক প্রবাহের একটি আন্তর্জাতিক ট্রেডিং কম্পিউটারাইজড পদ্ধতি। ফরেন এক্সচেঞ্জ মার্কেটে বৈদেশিক মুদ্রা, স্টক, তেল এবং ধাতু ট্রেড হয়।
সেকারণে, নিত্যপণ্যের ও স্টক মার্কেটের পাশাপাশি আন্তর্জাতিক মুদ্রাবাজারও রয়েছে, সবসময় ধরে (সপ্তাহশেষে এবং ছুটির দিন ব্যতীত) যেখানে ট্রেড সম্পন্ন হয় ইন্টারনেটের মাধ্যমে। ফরেক্সের মূল অংশগ্রহণকারীগণ প্রথমত কেন্দ্রীয় ও আন্তর্জাতিক বাণিজ্যিক ব্যাংক এবং কোম্পানিসমূহ যারা আমদানি ও রপ্তানি বাণিজ্যের সাথে জড়িত।
ফরেক্স মার্কেট হল একটি বিকেন্দ্রিক পদ্ধতি, যেখানে সদস্যরা একে অন্যের সাথে জড়িত। আধুনিক টেলিযোগাযোগ সুবিধার উন্নয়ন, একটি নতুন ধরনের ট্রেড সম্পাদনে ভূমিকা রেখেছে। ইলেক্ট্রনিক লেনদেন পদ্ধতিসমূহ যেগুলো পর্যায়ক্রমে তথাকথিত টেলিফোন লেনদেনে পরিবর্তিত হচ্ছে সেগুলোর মাধ্যমে পরিচালিত এটি একটি তথাকথিত দূরবর্তী ট্রেডিং।
একটি ফরেক্স মার্কেটে একটি মুদ্রা কেনা সম্ভব, যেমন ইউরো (EUR), সুইচ ফ্রাঙ্ক (CHF) অথবা জাপানিজ ইয়েন (JPY)। ফরেক্স মার্কেটে কার্যক্রম এবং গতিবিধি নির্ধারণ করে স্বাধীনভাবে বিনিময়যোগ্য আন্তর্জাতিক মুদ্রাহারসমূহ। ট্রেডে জড়িত সকল মুদ্রাসমূহ একটি ভাসমান বিনিময় হারে মার্কেটে প্রতিনিধিত্ব করে।
ফরেক্সে ট্রেডিং এর আছে প্রতিদিন ৫ ট্রিলিয়ন মার্কিন ডলারের সমতুল্য বিস্ময়কর পরিমাণে দৈনিক লেনদেন, এভাবেই স্টক মার্কেটে ট্রেডের পরিমাণ ছাড়িয়ে যায় ৫০ গুণ। গত কয়েক বছরে ফরেক্স আরও জনপ্রিয় হয়েছে, এভাবেই আজ এটি একটি ব্যাপক বিস্তৃত মুনাফাযোগ্য ব্যবসা। সংঘটিত লেনদেনের প্রায় ৮০% এর লক্ষ্য থাকে কোটকৃত মুদ্রাহারের পার্থক্য থেকে মুনাফা অর্জন করা।
FX মার্কেট, বর্তমান সময়ে বিদ্যমান প্লাটফরমগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বেশি বিস্তৃত। এটাতে অংশগ্রহণকারীদের অল্প সময়ের মধ্যে উল্লেখযোগ্য মুনাফা করার সুযোগ আছে। এটা বিশ্বাস করা হয় যে, ফরেক্স মার্কেট স্টক মার্কেটের চেয়ে বেশি জনপ্রিয়। তবুও, এটা এমন কিছু বুঝায় না যে ফরেক্স ট্রেডিং, স্টক লেনদেনের চেয়ে সহজ, এমনকি সেক্ষেত্রে কম স্বচ্ছতা আছে। প্রত্যেকেই স্টক মার্কেটে ঢুকতে পারে না, অন্যদিকে সামান্য কিছু মার্কিন ডলার পুঁজি হিসাবে নিয়েই যে কেউ ফরেক্সে কাজ শুরু করে দিতে পারে। প্রয়োজনে, ব্রোকার ট্রেডারের জন্য একটি মার্জিন সরবরাহ করে। অবশ্যই, ফরেক্স মার্কেটে মুনাফা খুব বেশি; যদিও, একেবারে সবকিছু হারানোর আশঙ্কা ক্ষীণ।
যেহেতু অনলাইন ফরেক্স ট্রেডিং এর সাথে আমাদের পরিচয় খুব বেশি দিনের না। একসময় শুধু বড় বড় ফাইনান্সিয়াল প্রতিষ্ঠানগুলাই এ ব্যবসা করার সুযোগ পেত। সাধারণ মানুষের খুব নাগালে ছিলনা এটি হয়তো হাতে গোনা কিছু মানুষ এ ব্যবসাটিতে ছিল কিন্তু প্রযুক্তির প্রসারে এবং অনেক ব্রোকারেজ হাউজ মাইক্রো ট্রেডারদের ট্রেডের সুযোগ দেবার কারণে ফরেক্স ট্রেড শব্দটি এখন অনেকেরই জানা।
এ মার্কেটের সবচেয়ে বড় সুবিধা এটি ২৪ ঘণ্টা চালু থাকে সপ্তাহের পাঁচদিন শুধু মাত্র উইকেন্ড শনি-রবিবার বন্ধ থাকে। বাংলাদেশ সময় সোমবার রাত ৩:০০টা থেকে শুক্রবার রাত ৩:০০ পর্যন্ত এ মার্কেট খোলা থাকে। কোন কোন ব্রোকারেজ হাউজে ১ ঘণ্টা এদিক সেদিক হয় তাদের টাইমজোনের কারণে।
অনলাইন ফরেক্স ১৯৯৬ সালের আগে পর্যন্ত খুচরা পর্যায়ে আমাদের মত ক্ষুদ্র টেডারদের জন্য ফরেক্স উন্মুক্ত ছিলনা। বড় কোম্পানী এবং ফাইনান্সিয়াল কোম্পানীগুলোই সেগুলো করত। কিন্তু নিত্য নতুন টেকনোলজির কারণে বিভিন্ন ব্রোকারেজ হাউজের কারণে আজ একজন ক্ষুদ্র ট্রেডার ১0 ডলার ইনভেষ্ট করেও ফরেক্স ট্রেড করতে পারে। এটি আমাদের জন্য প্রযুক্তির একটি আশির্বাদ স্বরূপ বলা যায়।

 ফরেক্স মার্কেট কোথায় অবস্থিত?

ফরেক্স মার্কেটের নির্দিষ্ট কোন মার্কেট লোকেশন নেই। স্টক মার্কেটের যেমন নির্দিষ্ট স্থান রয়েছে যেমন আমেরিকার স্টক মার্কেট New York Stock Exchange (NYSE). কানাডার স্টক মার্কেট Toronto Stock Exchange. ইউরোপিয়ান স্টক মার্কেট Amsterdam Stock Exchange, London Stock Exchange, Paris Bourse,আফ্রিকার স্টক মার্কেট Nigerian Stock Exchange, JSE Limited, ইত্যাদি. এশিয়ায় আছে Philippine Stock Exchange, the Singapore Exchange, the Tokyo Stock Exchange, the Hong Kong Stock Exchange, the Shanghai Stock Exchange, and the Bombay Stock Exchange. অস্ট্রেলিয়ার আছে the Australian Securities Exchange, বাংলাদেশের আছে DSE, CSE ইত্যাদি।
কিন্তু ফরেক্স মার্কেটের এমন নির্দিষ্ট কোন লোকেশন নেই। মূলত পুরো বিশ্বই হল ফরেক্স এর মার্কেট। এটা মূলত গ্লোবালি সকল ব্যাংকের সাথে, ফাইনান্সিয়াল প্রতিষ্ঠানের সাথে সম্পৃক্ত। তাই আপনি বিশ্বের যেকোনো প্রান্তে যেকোনো স্থানে ফরেক্স ট্রেড করতে পারবেন।

 কারা ফরেক্স ট্রেড করে?

যেহেতু এ মার্কেটের ব্যাপকতা অনেক। অনেকেই এখানে অংশগ্রহণ করে থাকে।
১. ব্যাংক
২. বড় আর্ন্তজাতিক কোম্পানীগুলো
৩. ট্রেডিং কোম্পানী
৪. স্বল্পমেয়াদী ট্রেডার। যাকে ইংরেজিতে Speculator বলা হয়।
সোজা বাংলায় বুঝতে গেলে Speculator হল তারা যারা হাই লিভারেজের সুবিধা নিয়ে মার্কেটের টেকনিক্যাল এবং ফান্ডামেন্টাল মুভমেন্ট বুঝে বিভিন্ন টেকনিক ব্যবহার করে প্রফিট করে থাকে।
মূলত আমরা স্বল্পমেয়াদী ট্রেডারদের মধ্যে অতি ক্ষুদ্রাতিক্ষুদ্র কিছু ট্রেডার।খুবই ক্ষুদ্র বিনিয়োগে যারা বিশাল বড় অংকের ট্রেড করে থাকে। যেমন একাউন্টে আছে ১০০০ ডলার কিন্তু ১:৫০০ লেভারেজে ৫ লক্ষ টাকার ক্রয়-বিক্রয় সম্পন্ন করল। তাই এতে লাভ-ক্ষতি দুটিই বড় আকারে হয়।

Language »